২০২৪ সালে নির্বাচনে ফের প্রার্থী হচ্ছেন ট্রাম্প?

চলতি বছরের মার্কিন নির্বাচনে ডেমোক্র্যাটদলীয় প্রার্থী জো বাইডেনের কাছে পরাজিত হওয়ার ক্ষোভ আর তিক্ততার একটি মাস চলে যাওয়ার পরও ২০২৪ সালেও প্রার্থী হওয়ার ভাবনা প্রকাশ্যে জানিয়েছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।

হার অস্বীকার করে ট্রাম্পের আইনজীবী ও সমর্থকরা বুধবারও মামলা দাখিল করেছেন। নতুন ভোটের আয়োজনে সামরিক আইনের মতো অস্বাভাবিক হস্তক্ষেপেরও আহ্বান জানিয়েছেন।

৪৬ মিনিটের একটি ভিডিও ছেড়েছেন ট্রাম্প। যাতে তিনি দাবি করেন, কারচুপির নির্বাচনের মাধ্যমে তার কাছ থেকে বিজয় ছিনিয়ে নেয়া হয়েছে।

কিন্তু বুধবার হোয়াইট হাউসের ক্রিসমাস পার্টিতে তিনি বলেন, এই লড়াইয়ে সম্ভবত তিনি হেরে যাবেন। কিন্তু এক মেয়াদের প্রেসিডেন্ট হিসেবে তিনি সম্পূর্ণভাবে অবসরে যাবেন না।

অতিথিদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি বলেন, চারটি বছর খুবই চমৎকার ছিল। আমরা আরও চার বছরের জন্য চেষ্টা করছি। অন্যথায় চার বছরের মধ্যে আমাদের দেখা হচ্ছে।

তার এই মন্তব্য বলে দিচ্ছে, বাইডেনের বিজয়ের ফল উল্টাতে তার মাসব্যাপী অদ্ভুত চেষ্টার পর পরাজয় স্বীকারের খুব কাছে চলে আছেন ট্রাম্প।

‘ব্যাটলগ্রাউন্ড’ ছয়টি রাজ্য তাদের ভোট গণনার পর বিজয়ীকে সনদ দিয়েছে। এ ছাড়া জনপ্রিয়তার ভোটেও ট্রাম্পের চেয়ে বাইডেন কয়েক লাখ এগিয়ে। চার শতাংশ-পয়েন্ট প্রান্তিক যা কখনও অতিক্রম করা সম্ভব হবে না।

মঙ্গলবার অ্যাটর্নি জেনারেল বিল বার বলেন, নির্বাচনে জালিয়াতির উল্লেখযোগ্য কোনো প্রমাণ পায়নি বিচার বিভাগ। আর আগামী ২০ জানুয়ারি ক্ষমতাগ্রহণ করতে প্রস্তুতি অব্যাহত রেখেছেন জো বাইডেন।

২০২৪ সালের নির্বাচনে ফের দাঁড়ানোর সম্ভাবনার বিষয়ে এর আগ পর্যন্ত চুপ ছিলেন ট্রাম্প। ২৬ নভেম্বর, থ্যাংসগিভিং ডে-তে তিনি বলেছিলেন– আমি এখনও ২০২৪ নিয়ে কথা বলতে চাই না।

কিন্তু চার বছর পর তিনি আবার নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে চান, রুদ্ধদ্বার কক্ষে ট্রাম্প তার উপদেষ্টাদের এমনটি বলেছিলেন বলে সোমবার ফক্স নিউজের প্রধান হোয়াইট হাউস সংবাদদাতা জন রবার্টস তার এক প্রতিবেদনে জানিয়েছিলেন।

২০ জানুয়ারি বাইডেনের অভিষেক অনুষ্ঠানের আগেই বা ওই অনুষ্ঠান চলাকালে ট্রাম্প ফের চার বছর পরের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে দাঁড়ানোর ঘোষণা দিতে পারেন বলে প্রতিবেদনটিতে বলা হয়েছিল।

অভ্যন্তরীণ ওই বিতর্ক সম্পর্কে অবহিত একটি সূত্র বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে জানিয়েছেন, ২০ জানুয়ারি বাইডেনের অভিষেক অনুষ্ঠানে উপস্থিত না হয়ে বরং ওই সময়ই ২০২৪ সালের নির্বাচনে দাঁড়ানোর ঘোষণা দেবেন বলে উপদেষ্টাদের সঙ্গে আলোচনা করছিলেন ট্রাম্প।

তবে তখন এ বিষয়ে কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি বলে জানিয়েছেন তিনি।

Updated: 03/12/2020 — 4:27 PM