Breaking News

সেই বিতর্কিত আউট নিয়ে মুখ খুললেন তামিম

গতকাল বড় রান তাড়া করতে নেমে শুরুতেই নাইম শেখ আর সাকিবের বিদায়ে যখন বিপদে বাংলাদেশ তখনই অধিনায়ক তামিম ইকবালের বিতর্তিক আউট। আম্পায়ারের সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে রিভিউ নিয়েও বাঁচতে পারেননি। অসন্তোষ প্রকাশ করে মাঠ ছাড়েন টাইগার অধিনায়ক। ম্যাচ শেষে জানিয়েছেন, তিনি নট আউট ছিলেন।

২৮৭ রানের লক্ষ্যে ওপেনিং জুটিই করে হতাশ। লিটন দাসকে বসিয়ে এই ম্যাচ খেলানো হচ্ছে নাঈম শেখকে। কিন্তু এই তরুণ করেন হতাশ। পেসার দুশমন্ত চামিরার বলে জায়গায় দাঁড়িয়ে ড্রাইভ করতে গিয়েছিলেন। ফলাফল স্লিপে লোপ্পা ক্যাচ।

বাংলাদেশের প্রথম তিন ব্যাটসম্যান বাঁহাতি হয়ে যাওয়াতেও প্রতিপক্ষের জন্য কাজটা ছিল সহজ। তিনে নামা সাকিব ফর্মে ফেরার পথে যেতে যেতে পারেননি। তার রিফ্লেক্সের ঘাটতি দেখা গেছে। চামিরার বাউন্সার মারার মতোই ছিল। কিন্তু রিফ্লেক্সের ঘাটতির কারণে সহজ ক্যাচ তুলে ফেরেন তিনি।

আগের দুই ম্যাচের নায়ক মুশফিকুর রহিমকে নিয়ে প্রতিরোধের চেষ্টায় ছিলেন অধিনায়ক তামিম। অনেকক্ষণ ক্রিজে থেকেও আগে বাড়তে পারেননি। তাকেও ছাঁটেন চামিরা। ইয়র্কার লেন্থের বল ব্যাট নামিয়ে খেলতে গিয়েছিলেন। ব্যাট মাটিতে লাগার সময় স্পর্শ করে বলেও। মাঠের আম্পায়ারের আউটের সিদ্ধান্ত রিভিউ নিয়ে পাল্টাতে পারেননি তামিম। সিদ্ধান্তে মাঠেই হতাশা জানিয়ে বের হয়ে যান বাংলাদেশ অধিনায়ক।

ম্যাচশেষে তামিম জানালেন তিনি শতভাগ নিশ্চিত যে বলটি তার ব্যাটে লাগেনি। তামিম বলেন, “অনেক হতাশাজনক। কারণ আমি শতভাগ নিশ্চিত যে ওটা আমি খোঁচা দেইনি। ওটা রিভিউতে গেল। আমার ব্যাট আর মাটিতে যখন লাগে আর বল তখন খুব ক্লোজ ছিল। এটা (আউটের সিদ্ধান্ত) বদলে দেওয়া অনেকটা অসম্ভব ছিল। মাঠের আম্পায়ার নট আউট দিলে ভিন্ন কিছু হতে পারত।”

Check Also

অধিনায়কত্ব পেলেন সাকিব

এবারের প্রিমিয়ার লিগে মোহামেডানের হয়ে খেলবেন সাকিব আল হাসান। বিশ্বসেরা অলরাউন্ডারের নেতৃত্বেই এবারের লিগে খেলবে …