মেসিকে নেইমার : আগামী মৌসুমেই আমরা একসঙ্গে খেলবো

বার্সা ছেড়ে পিএসজিতে যাওয়ার পর গত দুই মৌসুম চেষ্টা করছেন নেইমার, আবার বার্সায় ফেরার। কিন্তু নানা জটিলতার কারণে সেটা হয়নি। আবার গত মৌসুমে মেসি চেষ্টা করেছিলেন, বার্সা ছেড়ে যাওয়ার। তখন তাকে কেনার দৌড়ে ছিল নেইমারের ক্লাব পিএসজিও।

আগামী জানুয়ারিতেই বার্সার সঙ্গে চুক্তির মেয়াদ শেষ হয়ে যাচ্ছে মেসির। এরপর তিনি ফ্রি। চাইলে নতুন চুক্তি করে বার্সায় থাকতে পারবেন। আবার চাইলে অন্য কোথাও যেতে পারবেন।

মেসির সাবেক সতীর্থ, ব্রাজিলিয়ান তারকা নেইমার ইএসপিএনের সঙ্গে এক সাক্ষাৎকারে মেসিকে বলে দিলেন, আগামী মৌসুমেই আবার আমরা একসঙ্গে খেলতে নামবো।

বার্সায় মেসি-নেইমার-সুয়ারেজ, বিখ্যাত এমএসএন জুটি গড়েছিলেন। চারবছরের সেই জুটি ছিল অপ্রতিরোধ্য। যে কারণে, ২০১৭ সালে ২২২ মিলিয়ন ইউরোর বিনিময়ে পিএসজিতে আসার পর নেইমার যখন বুঝলেন, তখন থেকে আবারও বার্সায় যাওয়ার জন্য নিয়মিত চেষ্টা করে যাচ্ছিলেন।

ম্যানইউর বিপক্ষে ৩-১ গোলে জয়ের পর ইএসপিএনকে নেইমার বলেন, ‘আমি সব সময়ই চাই মেসির সঙ্গে পূনরায় খেলার জন্য। আমার বিশ্বাস, অবশ্যই মাঠে তার সঙ্গে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে আবার খেলতে সক্ষম হবো।’

নেইমারের কথায় মনে হচ্ছে, আগামী মৌসুমে কি তাহলে মেসি পিএসজিতেই যোগ দেবেন! ব্রাজিলিয়ান এই তারকা পিএসজিতে নিজের জায়গা ছেড়ে দিতে রাজি। নেইমার বলেন, ‘তিনি (মেসি) চাইলে আমার জায়গাতেই খেলতে পারে। তার জন্য আমি জায়গা ছেড়ে দিতে রাজি আছি। এতে আমার কোনো সমস্যা হবে না। সুতরাং, যেভাবেই হোক আমি চাই, আগামী বছর আবার আমরা দু’জন একসঙ্গে খেলতে পারবো। এবং এটা নিশ্চিত। আমরা অবশ্যই আগামী মৌসুমে এটাকে বাস্তবায়ন করে ছাড়বো।’

নেইমারের এই বক্তব্যে স্পষ্ট হয়ে যাচ্ছে, ২০২১ সালে মেসি যোগ দিতে পারেন প্যারিসের ক্লাবটিতে। গত আগস্টে বায়ার্ন মিউনিখের কাছে ৮-২ গোলে হারের পর মেসি সরাসরি বার্সা ছাড়ার ঘোষণা দিয়েছিলেন। কিন্তু চুক্তি সম্পর্কিত ঝামেলার কারণে ক্লাব ছাড়তে চেয়েও পারেননি। ওই সময় বার্সা ছাড়তে পারলে ম্যানসিটিতে মেসির যোগ দেয়া প্রায় নিশ্চিত ছিল।

যদিও পিএসজি তখন থেকেই পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করে আসছিল। দলটির কোচ টমাস টুখেল বলেছিলেন, মেসিকে অবশ্যই তারা প্যারিসে স্বাগত জানাতে চান। বার্সাও চায় মেসির সঙ্গে নতুন করে চুক্তি করতে। কিন্তু বিষয়টা আটকে আছে বার্সার নতুন প্রেসিডেন্ট ইলেকশন পর্যন্ত। যেটা অনুষ্ঠিত হবে জানুয়ারির ২৪ তারিখে।

Updated: 03/12/2020 — 12:36 PM