Breaking News

ফেসবুকে লাইকের জন্য বাবা একি করলেন

বহুতল ভবনের জানালা দিয়ে বাইরে স’ন্তানকে ঝু’লিয়ে ছবি তুলে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে বেশি লাইক পাওয়ার আশা করেছিলেন আলজেরিয়ার এক ব্যাক্তি। স’ন্তানকে ঝুঁ’কিতে ফে’লে লাইক পাওয়ার এ চেষ্টার অভিযোগে দেশটির একটি আ’দালত ওই বাবাকে দুই বছরের কা’রাদ’ণ্ড দিয়েছেন।

ওই ব্যক্তি বহুতল ভবনের জানালায় স’ন্তানকে ঝু’লিয়ে ছবি তোলার পর ফেসবুকে পোস্ট করেন। ছবিতে ক্যাপশন জুড়ে দেন, ১ হাজার লাইক না হলে আমি তাকে ফে’লে দিবো। ফেসবুক ব্যবহারকারীরা ওই ছবি দেখার পর স’ন্তানকে নি’পীড়নের অভিযোগে তাকে গ্রে’ফতারের দাবি জানান।

স’ন্তানের সুরক্ষা বি’পদের মুখে ফেলার অভিযোগ আনা হয়েছে তার বি’রুদ্ধে। পরে রবিবার তাকে গ্রে’ফতার করে দেশটির আইন-শৃঙ্খলাবাহিনীর সদস্যরা।

আল-আরাবিয়া এক প্রতিবেদনে বলছে, দেশটির রাজধানী অালজিয়ার্সের একটি ভবনের ১৫ তলার জানালা দিয়ে স’ন্তানকে বাইরে ঝু’লিয়ে ধরেছিলেন অ’জ্ঞাত ওই ব্যক্তি।

বাবার কাছে বিবাহযোগ্য কন্যার অবাক করা খোলা চিঠি !

বাবার কাছে বিবাহযোগ্য-

প্রিয় বাবা,
কেমন আছো? আশা করি ভাল আছো। তুমি ভালো করে জানো তোমার মেয়ে নাবালিকা থেকে সাবালিকা হয়েছে। যদিও তুমি অনেক কাছেই আছো, তবুও কিছু কথা তোমাকে কিছুতেই মুখে বলতে পারছিনা। কিছুটা সামাজিক আচারের প্রতি নিষ্ঠা, আবার কিছুটা জড়তা এবং তোমার উত্ত’প্ত চাহনি বিনিময়ের ভ’য়েই লেখার আশ্রয় নিচ্ছি।

কারন, উত্ত’প্ত বাক্য বিনিময়ে আর যাই হোক কোন গঠনমূ’লক আলোচনা হতে পারেনা। বুঝলে বাবা! পৃথিবীর বেশীরভাগ মানুষই মনে হয় দ্বিচারী মা’নসিকতার!

তুমি আমি আর আমাদের মতো সাধারণ মানুষরা এই অভ্যাস কিংবা স্বভাব থেকে কিছুতেই বের হতে পারছি না। বাবা হিসেবেই আমার যে কাজটা তুমি মেয়ে হিসেবে সমর্থন করো নি, ছেলের জন্য সেই একই কাজকে দ্বিগুণ উৎসাহে করার উপদেশ দিয়েছ সবসময়।

যাই হোক! কিন্তু আজ জীবনের একটা বড় বাঁকে এসেও তুমি সেই কাজই করছো। তোমার মনে আছে কি? ভাইয়ার যখন বিয়ের কথা চলছিলো তখন এই তুমিই বাসার সমস্ত হাদিস বই নামিয়ে হারিকেন জ্বেলে খুঁজছিলে মোহরানা যেন মাত্রাতিরিক্ত বা বোঝা হয়ে না দাড়ায় সেই সংক্রান্ত বিধি বিধান। এবং পেয়েও গিয়েছিলে ।

যে দিন লতা ভাবির বাসায় এই সংক্রান্ত আলাপে গিয়েছিলে সেদিন হাদিস বইটিও সাথে করে নিয়ে গিয়েছিলে, যেন তোমার ছেলেকে মেয়ে পক্ষ মোহরানার চা’পে পিষ্ট করে ফেলতে না পারে, তার একটা আদর্শিক ভিত্তি দাড় করাতে পারো।

আর আজ সেই তুমিই যখন মেয়ের বাবা, তখন তুমিই বলছ- যে লাখ লাখ টাকা কাবিন ধরতে হবে, নাহয় আমার বিয়ে যে টিকবে, এই ছেলেটা যে আমাকে ছেড়ে যাবে না, তার কি নিশ্চয়তা থাকবে!

Check Also

বন্ধুর সুন্দরী স্ত্রী কে পেতে ভ’য়ানক কাণ্ড

বন্ধুর সুন্দরী স্ত্রী কে পেতে ভ’য়ানক কাণ্ড বন্ধুর স্ত্রী র চোখে চোখ পড়তেই মনের লেনদেন …