Breaking News

চলন্ত ট্রেনের ইঞ্জিনে আটকে গেল মোটরসাইকেল আরোহী

ঢাকা-চট্টগ্রাম রেলপথের ব্রাহ্মণবাড়িয়া শহরের লেভেল ক্রসিং (রেলগেইট) এলাকায় চলন্ত অবস্থায় মালবাহী ট্রেনের ইঞ্জিনে আটকে এক মোটর সাইকেল আরোহী আহত হয়েছেন। শনিবার (২৯ মে দুপুর আড়াইটার দিকে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনার পর প্রায় দেড়ঘণ্টা এক লাইনে ঢাকা-চট্টগ্রাম রেলপথে ট্রেন চলাচল বন্ধ থাকে।

প্রত্যক্ষদর্শী ও রেলওয়ে সংশ্লিষ্টরা জানান, গত ২৬ মার্চ হেফাজতের তাণ্ডব চলাকালে রেলওয়ে স্টেশন ভাঙচুর এবং অগ্নিসংযোগ করে পুড়িয়ে দেয় দুর্বৃত্তরা। এরপর থেকে ব্রাহ্মণবাড়িয়া রেলওয়ে স্টেশনে সবধরনের ট্রেনের যাত্রাবিরতি বন্ধ ঘোষণা করে পূর্বাঞ্চলীয় রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ। অরক্ষিত অবস্থায় রয়েছে শহরের প্রধান সড়কের ওপর নির্মিত রেলওয়ে লেভেল ক্রসিংটি।

এ অবস্থায় দুপুর আড়াইটার দিকে বেশ কয়েকজন যুবক মোটরসাইকেলে ব্রাহ্মণবাড়িয়া শহরের রেলওয়ে লেভেল ক্রসিংটি অতিক্রম করছিলেন। এসময় ঢাকা থেকে চট্টগ্রামমুখী একটি মালবাহী ট্রেনের ইঞ্জিনের সামনের অংশে মোটরসাইকেলসহ এক আরোহী আটকে যায়। এসময় চলন্ত অবস্থায় ট্রেনটি মোটর সাইকেল আরোহীসহ অন্তত ২শ’ গজ দূরে গিয়ে থামে। এ সময় মোটর সাইকেলের চালক আহত হন।

দুমড়ে-মুচড়ে যায় মোটর সাইকেলটি। পরে স্থানীয়রা এসে ট্রেনের নিচ থেকে মোটরসাইকেল ও আরোহীকে টেনে বের করেন। এক পর্যায়ে উত্তেজিত কয়েকজন যুবক ট্রেনের ইঞ্জিনের বগিতে পাথর নিক্ষেপ ও ভাঙচুর করে। এসময় ট্রেনের সহকারী চালক জসিম উদ্দিনক মারধর করে আহত করেন। পরে আহত অবস্থায় স্থানীয়রা ওই মোটর সাইকেল চালক এবং ট্রেন চালককে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর হাসপাতালে চিকিৎসার জন্যে নিয়ে আসেন। প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে ট্রেনের চালককে হাসপাতাল থেকে ছেড়ে দেওয়া হয়।

ট্রেনের প্রধান চালক আনোয়ার হোসেন জানান, ব্রাহ্মণবাড়িয়া শহরের লেভেল ক্রসিংটি ছিল অরক্ষিত। লেভেল ক্রসিংয়ের ওপর মোটর সাইকেল দেখে আমরা দূর থেকে হুইসেল দিয়ে আসছিলাম। কিন্তু মোটর সাইকেল আরোহীরা অন্যমনস্ক থাকায় মোটর সাইকেলসহ আরোহী ট্রেনের নিচে পড়ে যায়। চালকের দূরদর্শিতার কারণে মোটর সাইকেল আরোহী বেঁচে যায়।

তিনি জানান,আমার সহকর্মী সহকারী চালক জসিম উদ্দিনকে মারধর করা হয়েছে। ট্রেনের গ্লাস ভাঙচুর করা হয়েছে।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া রেলওয়ে ষ্টেশন মাষ্টার মো. শোয়েব জানান, ‘গত ২৬ মার্চ হেফাজতের তাণ্ডব চলাকালে রেলওয়ে স্টেশন ভাঙচুর এবং অগ্নিসংযোগ করে পুড়িয়ে দেয় দুর্বৃত্তরা। এরপর থেকে ব্রাহ্মণবাড়িয়া রেলওয়ে স্টেশনে সবধরনের ট্রেনের যাত্রা বিরতি বন্ধ রয়েছে।

বিকেল ৪টার দিকে ট্রেনটি চট্টগ্রামের উদ্দেশে ছেড়ে যাওয়ার পর উভয় লাইনে ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক হয়।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট সদর হাসপাতালের চিকিৎসক মির্জা মো. সাইফ জানান, আহত মোটর সাইকেল অরোহীকে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। ট্রেনের চালককে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।

আখাউড়া রেলওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাজহারুল করিম জানান, সহকারী ট্রেনচালকে মারধর ও হামলার ঘটনায় আইনানুসারে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

Check Also

আদর্শ মা হতে চান অপু বিশ্বাস (ভিডিও)

ঢালিউড কুইনখ্যাত চিত্রনায়িকা অপু বিশ্বাস। ছেলে আব্রাম খান জয়কে নিয়েই তার ভাবনা চিন্তা। ছেলেকে সঠিক …