এই ৭ সুন্দরী যারা বেশি বয়সে বিয়ে করেছেন, প্রীতি জিন্তারটা জা‘নলে অ’বাক হবেন!

সাধারণত প্রেমের পরের ধাপ বিয়েই হয়।আজ আমর’া আপনাদের সেই অ’ভিনেত্রীদের স’ম্পর্কে বলতে যাচ্ছি যারা বিয়ে করার জন্য তাড়াহুড়া করেনি।

বিদ্যা বালন: বিদ্যা বালান তার চলচ্চিত্রের মাধ্যমে গোঁড়া বিচারব্যব’স্থার ওপর বিরো’ধ ঘো’ষণা করেন না বরং তিনি বাস্তব জীবনেও ভীড় থেকেও দূ’রে চলেন। ৩৫ বছর বয়সে বিদ্যা ইউটিভির প্রধান সি’দ্ধার্থ রায় কাপুরকে বিয়ে করেন।

মাধুরী দীক্ষিতঃ ধক ধক গার্ল মাধুরী দীক্ষিত বিয়ে করার জন্য কোনো তাড়াহুড়ো করেননি। আপনারা তো এটা সবাই জা’নেন যে উনি আমেরিকায় বসবাসকারী ডাক্তার শ্রীরাম নেনে কে বিয়ে করেন। বিয়ের সময় মাধুরীর বয়স ছিলো ৩২ বছর।

ঐশ্বরিয়া রাই: জুনিয়ার বচ্চন এবং বিশ্বসু’ন্দরী ঐশ্বরিয়ারাই এর বিয়ে হয়ে ১০ বছর হয়ে গেছে। ঐশ্বরিয়া সালমান থেকে বিবেক ওবেরয়ের সাথে প্রেম করার পর শেষে অ’ভিষেক বচ্চনকে বিয়ে করেন। অ’ভিষেক ঐশ্বরিয়ার থেকে দুই বছরের ছোট। বিয়ের সময় ঐশ্বরিয়ার বয়স ছিল ৩৪ বছর।

শিল্পা শেট্টিঃ শিল্পা শেট্টি এবং রাজ কুন্দ্রা ২০০৯ সালে বিয়ে করেন। শিল্পার এখন বয়স ৪২ বছর। কিন্তু ওনাকে দেখে যেন মনে হয় বয়স বাড়ার সাথে সাথে ওনার সুন্দর্য আরো যেন বাড়ছে। বিয়ের সময় শিল্পার বয়স ছিল ৩৪ বছর।

রানী মুখার্জিঃ রানী মুখার্জি এবং আদিত্য চোপড়ার বিয়ের খবর সাধারণ ব্যাপার। রানী মুখার্জীর সাথে বিয়ে করার জন্য আদিত্য চোপড়া নিজে’র প্রথম স্ত্রী পায়েল খান্নাকে

ডিভোর্স দিয়ে দেন। বিয়ের সময় রানির বয়স ছিলো ৩৫ বছর এবং আদিত্যর বয়স ছিল ৪৩ বছর।

প্রীতি জিন্তা: ২০১১ সালে প্রীতি তার আমেরিকান বয়ফ্রেন্ড জিএন গু’ডেনোফকে বিয়ে করেন। প্রীতি, তার সাহসী বিচার এবং খোলা চিন্তা দ্বারা পরিচিত। বিবাহের সময় প্রীতি ৪১ বছর বয়সী ছিলেন।

লিজা রেঃ লিজা একজন খুবই সাহসি মহিলা। তিনি ক্যা’ন্সারের মতোন রো’গের সাথে লড়াই করার পর চল্লিশ বছর বয়সে তার প্রেমিক জ্যাসন কে বিয়ে করেন।

Updated: 21/11/2020 — 8:33 AM